উপাচার্যের ফেসবুক আইডি হ্যাকড, ছাত্রীকে বহিষ্কার

গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের ফেসবুক আইডি হ্যাক করার অভিযোগে আইন বিভাগের এক ছাত্রীকে বহিষ্কার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। গতকাল বুধবার এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। তবে কত দিনের জন্য ওই ছাত্রীকে বহিস্কার করা হলো, সেটা জানানো হয়নি। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. নূরউদ্দিন আহমেদ স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিটিতে বলা হয়েছে, আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ফাতেমা-তুজ-জিনিয়া বিভিন্ন সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন সম্পর্কে ফেসবুকে খারাপ মন্তব্য করেন।
এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান ক্ষুণ্ন হয়েছে। এ ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের ফেসবুক আইডি হ্যাক করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলে দিয়েছেন। এ জন্য তাঁকে বহিষ্কার করা হলো
বহিষ্কার শিক্ষার্থী ফাতেমা-তুজ-জিনিয়া বলেন, ‘কীভাবে ফেসবুক আইডি হ্যাক করতে হয়, আমি তো সেটাই জানি না। তা ছাড়া উপাচার্য স্যারের ফেসবুক হ্যাক করতে যাব কেন? আমি কোনো দিন বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়ে কোনো মন্তব্য করিনি। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন নিয়ে তো প্রশ্নই ওঠে না।
ফাতেমা-তুজ-জিনিয়া দাবি করেন, তাঁর বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ সাজানো হয়েছে। তবে কেন এমন করা হয়েছে, সে বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না।
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আশীকুজ্জামান ভূইয়া বলেন, ‘জিনিয়া আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির ওয়েবসাইট হ্যাক করতে চায়। আমাদের ভিসি স্যারের ফেসবুক হ্যাক করেছে।
বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো. নূরউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘আমি ফেসবুক ব্যবহার করি না। এসব প্রমাণ আমার কাছে নেই। বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম অনুযায়ী তাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তার যদি কোনো বক্তব্য থাকে সেটা পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে লিখিতভাবে জানাতে বলা হয়েছে। পরে আমাদের শৃঙ্খলা কমিটির বৈঠকে সেটা নিয়ে আলোচনা হবে। এই বিষয়ে জানতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য খোন্দকার নাসির উদ্দিনের মুঠোফোনে একধিকবার কল করেও তাঁকে পাওয়া যায়নি।