কুমিল্লায় করোনা সন্দেহে লক ডাউন করা প্রথম ব্যক্তির সাক্ষাৎকার।

আমি,সজিব সরকার।

জ্বর,ঠান্ডা,কাশি হয়েছে বলে বলে ভয় পেয়ে আতঙ্কিত হবার কিছু নেই,,,মনে সাহস আর নিজের প্রতি আত্নবিশ্বাসী রেখে সচেতনতার সাথে ট্রিটমেন্ট করেন ইনশাআল্লাহ আপনি সুস্থ হয়ে ওঠবেন।

আপনাদের কি মনে আছে সেই “বাগিচাগাও এর ছেলেটির কথা,
যাকে করোনা সন্দেহে পরো কুমিল্লা শহর কেপেছিলো,আতঙ্কে ছিলো।
সেই ছেলেটিই আমি – সজীব।
আমাদের পুরো ভবন লকডাউন করে দেয়া হয়েছিল,,চারদিকে পুলিশ পাহারা,এলাকায় মাইকিং,পএিকায়,,ফেসবুকে লেখালেখি,,,,ঐ মুহূর্তে আমার পরিবার আমাকে বলেছিলো ভয় পাবার কিছু নেই,,,আমি তখন হাসতে হাসতে বলেছিলাম আমি ভয় পাচ্ছি না,,আমার কাছে মনে হচ্ছে আমি কোনো VIP Person যার জন্য এতো আয়োজন,, বাসার চারপাশে পুলিশ পাহারা।
আমি যখন হসপিটাল এ জ্বর, কাশির জন্য ডাক্তার দেখাতে গিয়েছিলাম তখন আমাকে বলা হয়েছিল জ্বর হলে ডাক্তার দেখবে না,,আমি তখন একটা মুচকি হাসি দিয়ে হসপিটাল থেকে বের হয়ে বাসায় চলে আসি,,আমি কিন্তু তখন ভয় পাই নি,,নিজের প্রতি আত্মাবিশ্বাস ছিলো,,মনোবল ছিলো মজবুত যার ফলে আজকে আমি সুস্থ এবং জনসচেতনতায় নিয়োজিত।
আমাকে নিয়ে পএিকায় এবং অনলাইন পএিকায় যে নিউজগুলো করা হয়েছিলো তা মিথ্যা,, আমার শুধু মাএ জ্বর ও কাশি ছিলো।
তাই আপনাদের বলবো,জ্বর, ঠান্ডা ও কাশি হলে ভয় পাবার কিছু নেই,,সচেতন হয়ে চলেন,,মনোবল মজবুত করে নিজের প্রতি বিশ্বাস রাখুন দেখবেন সব ঠিক।