বোমা নয়,ছিল মাথাকাটা লাশ

নাঈম হাসান :

ময়মনসিংহে নগরীর শম্ভুগঞ্জ ব্রিজ মোড়ে পড়ে থাকা লাগেজটি থেকে একজনের মাথাবিহীন লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। লাগেজটিতে বোমা আছে বলে গতকাল থেকে ওই এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছিল। এজন্য রাত আটটা থেকে পুলিশ বালুর বস্তা দিয়ে জায়গাটি ঘিরেও রাখে। সকালে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয় লাগেজটিতে বোমা নয়, একজনের মাথাবিহীন লাশ পেয়েছেন তারা।

জেলা গোয়েন্দা সংস্থার এক কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, লাগেজটিতে একজন পুরুষের মাথা ও পা কাটা লাশ পাওয়া গেছে। তার নামপরিচয় জানা যায়নি।

স্থানীয়রা জানান, পাটগুদাম ব্রিজের কাছে রবিবার সকাল ১১টা থেকে লাল রঙের একটি বড় ল্যাগেজ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয় লোকজন পুলিশের এক ট্রাফিক কর্মকর্তাকে জানায়। পরে ওই ট্রাফিক কর্মকর্তা সন্ধ্যায় বিষয়টি জেলা পুলিশকে অবহিত করেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বালুর বস্তা দিয়ে জায়গাটি ঘিরে রাখে।

পুলিশ জায়গাটি ঘিরে রাখলে মানুষের মধ্যে বোমাতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ময়মনসিংহ রেঞ্জ ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি, জেলা পুলিশ সুপার মো. শাহ আবিদ হোসেন, র‌্যাব-১৪ এর সিইও লে. কর্নেল ইফতেখার উদ্দিন।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনের সময় ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি জানিয়েছিলেন, লাল রঙের ল্যাগেজটি রহস্যজনক। তবে ল্যাগেজটিতে কোনো লাশ নেই বলে তিনি তার ধারণার কথা বলেছিলেন। থাকলে গন্ধ বের হতো। এজন্য বোম ডিসপোজাল ইউনিটকে খবর দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

অনেক আতঙ্কের পর সকালে লাগেজটি খুলে একজনের বস্তাবন্দি করা মাথাবিহীন লাশ উদ্ধারের কথা জানায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তবে লাগেজটিতে যার লাশ পাওয়া গেছে তার পরিচয় জানা যায়নি।

ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার শাহ আবীদ হোসেন জানান, এটি একটি ঠাণ্ডা মাথার হত্যাকাণ্ড। ময়নাতদন্তের জন্য দেহাংশটি ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতের পরিচয় ও দেহের অন্য অংশগুলো উদ্ধার এবং জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।