গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর মসজিদে নামাজ পড়তে এসে এক যুবক খুন!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ গোপালগঞ্জ জেলার মুকসুদপুর বাটিকামারীতে আধিপত্যের জেরে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে সুজন শেখ নামে এক যুবক খুন হয়েছে। জখম হয়েছে আরো তিনজন।

সোমবার ভোরে মুকসুদপুর উপজেলার বাটিকামারি বাহারা পশ্চিমপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সুজন শেখ ওই এলাকার মজিবর শেখের ছেলে।

মুকসুদপুর থানার ওসি মির্জা আবুল কালাম আজাদ জানান, এলাকার আধিপত্য নিয়ে বাটিকামারি বাহারা পশ্চিমপাড়া গ্রামের মজিবর শেখের সঙ্গে মতি মাতুব্বর ও ইব্রাহিম মাতুব্বরের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। রোববার সন্ধ্যায় বাটিকামারি বাহাড়া পশ্চিম পাড়া মসজিদে এশার নামাজ পড়া নিয়ে মজিবর শেখের সঙ্গে মতি মাতুব্বর ও ইব্রাহিম মাতুব্বরের কথা কাটাকাটি হয়। সোমবার ভোরে মসজিদে আবারো ফজরের নামজ পড়তে গেলে দুই পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় দুইপক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে প্রতিপক্ষের হামলায় সুজন শেখ নামে এক যুবক ঘটনাস্থলে নিহত হয়।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। জখম তুষার শেখ ও মজিবর শেখকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ওসি আরো জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে এখন পযর্ন্ত থানায় কোনো অভিযোগ দায়ের হয়নি। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।