নারীবিদ্বেষের অভিযোগ কার্তিকের বিরুদ্ধে।

প্রতিবেদক || মুজাহিদ হাসানঃ

করোনার বাজারে পিআর স্ট্র্যাটেজিও বুমেরাং হয়ে ট্রোলের কারণ হয়ে উঠতে পারে, তা বোধহয় ভিডিওটি পোস্ট করার আগে ভাবেননি কার্তিক আরিয়ান। তবে সমালোচনার জেরে শেষমেশ ভিডিয়োটি ডিলিট করতে বাধ্য হয়েছেন জেন ওয়াই হার্টথ্রব। কী এমন ছিল ভিডিওটিতে? কার্তিক ও তাঁর বোন কৃতিকা একটি স্কিট করেছিলেন। যেখানে খারাপ রুটি বানানোর জন্য বোনকে মজার ছলেই শাস্তি দিচ্ছেন তিনি। বোনের চুলের গোছা ধরে তাকে ঘুরিয়ে ছাদ থেকে ধাক্কা দিচ্ছেন কার্তিক। ক্যাপশনে লেখা ছিল ‘কোয়ালিটির সঙ্গে কোনও কম্প্রোমাইজ নয়’।

এই মজা নেটিজেনদের চোখে ‘গার্হস্থ হিংসা’র শামিল মনে হয়েছে। কার্তিকের এই ভিডিয়োর বিরুদ্ধে তীব্র ভাষায় প্রতিবাদ জানিয়ে পরিচালক ওনির টুইট করেছেন, ‘‘ইডিয়ট! এতে মজার কিছু নেই। ওকে কারও বলা উচিত, যে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির দায়িত্ববান শিল্পীরা গার্হস্থ হিংসার বিরুদ্ধে সচেতনতা বাড়ানোর জন্য দিন কয়েক দিন আগেই পোস্ট করেছেন।’’ গায়িকা সোনা মহাপাত্রও এতে খুবই ক্ষুব্ধ। লিখেছেন, ‘‘আমার তো মনে হয় বিনামূল্যে প্রচার পাওয়ার জন্য এটা ট্রেন্ড এখন। নারী-বিদ্বেষী কনটেন্ট পোস্ট করো। যাতে নারীবাদীরা প্রতিবাদ জানায়। কবীর সিং, ইন্ডিয়ান আইডল, হয়তো এই ভিডিয়োও সেই ট্রেন্ডেরই অংশ।’’ ‘পেয়ার কা পঞ্চনামা’র মোনোলগ যে বাস্তবে সব সময়ে খাটে না, এ বার বুঝতে হবে কার্তিককে।