লকডাউনের লাভস্টোরি

প্রতিবেদক || মুজাহিদ হাসানঃ

পরিকল্পনা ছিল না, পরিস্থিতি সুযোগ তৈরি করে দিল। লকডাউনের জেরে একসঙ্গে থাকতে শুরু করেছেন অভিনেত্রী সোহিনী সরকার ও রণজয় বিষ্ণু। গত ২৯ মার্চ ছিল রণজয়ের জন্মদিন। সোহিনীর বাড়িতেই কেক কেটে জন্মদিন পালন করেছিলেন। পরদিনই ব্যাগ গুছিয়ে সোহিনীর বাড়ি থাকতে চলে আসেন রণজয়। ‘‘এই সময়টায় একে অপরকে ছেড়ে দূরে থাকা বেশ চাপের,’’ বলছিলেন অভিনেত্রী। একসঙ্গে থাকার প্রস্তাবও তিনিই দিয়েছিলেন। এই সুযোগে অনেকটা সময় কাটাতে পেরে দু’জনেই রিল্যাক্সড।

সোহিনী বলছিলেন, ‘‘একে অপরকে চেনার এটাই ঠিক সময়। কঠিন পরিস্থিতি আমাদের আরও কাছাকাছি এনে দিয়েছে।’’ অন্য দিকে রণজয় বলছেন, ‘‘ছোটখাটো ঘটনার মধ্য দিয়েই একে অপরের কম্প্যাটিবিলিটি বোঝা যায়।’’ লিভ-ইনে কাজের দায়িত্ব ভাগ করে নিয়েছেন দু’জনে। রান্নার দায়িত্ব সোহিনীর আর রণজয় পেয়েছেন ঘর গোছানো, বাথরুম পরিষ্কারের কাজ। রান্নাতেও বাহুল্য নেই। এঁচোড়ের ঘন্ট, কচুর লতি বা তেতোর কোনও পদ… প্রেমিকার রান্নায় আপ্লুত রণজয় বলছিলেন, ‘‘সোহিনীর হাতে জাদু আছে। একদম মা-ঠাকুমার রান্নার মতো।’’ রান্না ছাড়াও নায়িকার ছবি আঁকার হাতও যে খুব ভাল, সেটা এ বারেই আবিষ্কার করেছেন রণজয়। তিনি নিজেও কিন্তু ভাল ছবি আঁকেন। একটা সময় আঁকা শেখাতেন রণজয়। তবে এখন শারীরচর্চাই তাঁর প্যাশন। অবসরে মন দিয়ে শারীরচর্চা করছেন রণজয়। টেনে নেন সোহিনীকেও।