বিশ্বকাপ জার্সি নিলামের পরামর্শ সাকিবের।

রাফাতুল ইসলাম :

মাত্র কিছুদিন আগেই ইংলিশ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান জস বাটলার ২০১৯ বিশ্বকাপ ফাইনাল ম্যাচের জার্সি নিলামে তুলেছিলেন । করোনাভাইরাসের জন্য সাহায্য তহবিল গড়তে বিশ্বকাপ ইতিহাসের অন্যতম সেরা সেই ম্যাচের জার্সি নিলামে বিক্রি করেন তিনি। বাংলাদেশি মুদ্রায় যেটির দাম উঠেছিল ৬৮ লাখ টাকারও বেশি।

বাংলাদেশি ক্রিকেটারদেরকেও একইভাবে জার্সি, ব্যাট ও ক্রিকেট সরঞ্জাম বিক্রি করে করোনা-যুদ্ধে এগিয়ে আসতে পরামর্শ দিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। বর্তমানে পরিবারের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানরত সাকিব আল হাসান তার ফাউন্ডেশনের প্রচারণায় কাল রাতে ফেসবুক লাইভে এসেছিলেন।
দেশের নিম্ন আয়ের মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য ক্রিকেটারসহ সমাজের সকল শ্রেণির মানুষকে এগিয়ে আসার জন্য বলেন তিনি, ‘অনেক দেশের ক্রিকেটাররা তাঁদের টি শার্ট কিংবা অন্যান্য সরঞ্জাম নিলামে তুলছে। আমরা এমন কিছুও হয়তো করতে পারি। সেটা আমাদের যে কোনো ক্রিকেটারের অটোগ্রাফসহ ব্যাটও হতে পারে। এই ব্যাপারগুলো আমরা করতে পারি। এই জিনিসগুলো আমরা নিলামে তুলতে পারি ফেসবুক কিংবা ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে।’

এরই মধ্যে নিজের ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে করোনার বিরুদ্ধে লড়ছেন সাকিব আল হাসান। সরাসরি না হলেও করোনাভাইরাস যুদ্ধের পেছনের যোদ্ধা হিসেবে কাজ করতে চান তিনি, ‘আমি ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধ দেখিনি। কিন্তু ইতিহাস থেকে পড়েছি অনেকে অনেকভাবে সামনের সারির মুক্তিযোদ্ধাদের সাহায্য করেছে। কেউ খাবার দিয়েছে, কেউ কাপড় দিয়েছে, কেউ তথ্য দিয়ে সাহায্য করেছে। আমি চিকিৎসক নই। সুতরাং, করোনা মোকাবেলায় আমি সামনে থেকে কাজ করতে পারব না। কিন্তু একজন পেছনের যোদ্ধা হিসেবে তো কাজ করতে পারব।’