লকডাউনে আলিয়ার ইতিবৃত্তি

প্রতিবেদক || মুজাহিদ হাসানঃ

বেশ অনেক দিনই হল বাবা-মায়ের কাছ থেকে আলাদা থাকেন আলিয়া ভাট্ট। আসা-যাওয়া চলতে থাকলেও, লকডাউনের জেরে তা এখন বন্ধ। এ দিকে বেশি দিন তাঁদের না দেখে থাকাও মুশকিল। তাই দিন দুয়েক আগে বাবা মহেশ ভাট্ট ও মা সোনি রাজদানকে দেখতে গিয়েছিলেন আলিয়া। সে কথা জানিয়েছেন মহেশ নিজেই। ‘‘খুব বেশি দূরে থাকে না আলিয়া। কিন্তু অনেক দিন দেখা না হওয়ায় সকলেরই মনখারাপ লাগছিল। বাড়ি এসেও আমাদের থেকে দূরত্ব রেখে বসেছিল,’’ বক্তব্য মহেশের।

আলিয়ার সঙ্গে তাঁর ফ্ল্যাটে থাকেন দিদি শাহিন। ইন্ডাস্ট্রিতে গুঞ্জন রণবীর কপূরও এখন আলিয়ার সঙ্গেই থাকছেন। বেশ কিছু দিন আগে আলিয়া ছবি পোস্ট করেছিলেন ইনস্টাগ্রামে, যার ফোটো কার্টেসিতে লেখা ছিল, আরকে।

লকডাউন ঘোষণার আগে সঞ্জয় লীলা ভন্সালীর ‘গঙ্গুবাই কাথিয়াওয়াড়ি’র শুটিং করছিলেন আলিয়া। মুম্বাইয়ের স্টুডিয়োয় তৈরি হয়েছিল বিরাট সেট।

এখন শোনা যাচ্ছে, সেই সেট নাকি ভেঙে ফেলার নির্দেশ দিয়েছেন ভন্সালী। শুটিং কবে শুরু হবে কেউ জানে না। দিনের পর দিন বিনা প্রয়োজনে সেটের ভাড়া গুনতে চান না প্রযোজক ভন্সালী। সেটটি মেনটেন করতে যে খরচ পড়ছে, তার চেয়ে ফের নতুন ভাবে তৈরি করে নিলে খরচ অনেক কম পড়বে। তাই নাকি ভাঙার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আলিয়া নিজেও এই সেটটি নিয়ে উত্তেজিত ছিলেন। ভন্সালীর সেট মানেই জাঁকজমক। সাক্ষাৎকারে সে কথা বলেওছিলেন আলিয়া। সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মুম্বাইয়ের স্টুডিয়ো পাড়া বন্ধ। নতুন সেটে কবে শুটিং শুরু হবে, সে দিকেই তাকিয়ে সকলে।