মঙ্গলবার, আগস্ট ১৬, ২০২২

ভবিষ্যতে গেরুয়া পতাকাই হতে পারে জাতীয় পতাকা, বললেন বিজেপি নেতা

ভবিষ্যতে কোনো একদিন গেরুয়া পতাকাই ভারতের জাতীয় পতাকা হতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন বিজেপির জ্যেষ্ঠ নেতা ও কর্ণাটকের গ্রাম উন্নয়ন ও পঞ্চায়েত রাজমন্ত্রী কে এস ঈশ্বরাপ্পা।

প্রকাশ :

বুধবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।

তবে ঈশ্বরাপ্পা এও বলছেন, এখন তেরঙ্গাই (সাদা, গেরুয়া, সবুজ তিন রঙের) ভারতের জাতীয় পতাকা, তাই সবারই তেরঙ্গা পতাকাকে সম্মান দেখানো উচিত।

“শত শত বছর আগে শ্রী রামচন্দ্র ও হনুমানের রথে গেরুয়া পতাকাই উড়ত। আমাদের দেশে কি তখন তেরঙ্গা পতাকা ছিল? এখন তেরঙ্গা আমাদের জাতীয় পতাকা হিসেবে স্বীকৃত, একে সবারই সম্মান দেখানো উচিত, এ নিয়ে কোনো প্রশ্ন থাকতে পারে না,” বলেছেন ঈশ্বরাপ্পা।

গেরুয়া পতাকা কি লাল কেল্লায়ও উড়ানো হবে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে জ্যেষ্ঠ এ বিজেপি নেতা বলেন, “এখন নয়, ভবিষ্যতে কোনো একদিন।”

“হিন্দু বিচার ও হিন্দুত্ব নিয়ে আজ আলোচনা চলছে। আমরা যখন বলতাম অযোধ্যায় রাম মন্দির হবে, তখন অনেকেই হেসেছেন। এখন কি সেখানে রামমন্দির হচ্ছে না? একইভাবে, ভবিষ্যতে কোনো একদিন, ১০০, ২০০ বা ৫০০ বছর পরে গেরুয়া পতাকাই হতে পারে জাতীয় পতাকা। আমি জানি না,” বলেন তিনি।

তবে যারা এখন সাংবিধানিকভাবে স্বীকৃত জাতীয় পতাকা তেরঙ্গাকে সম্মান দেখাবে না, তারা দেশদ্রোহী, বলেন ঈশ্বরাপ্পা।

“আমরাই গেরুয়া পতাকা উড়াই। আজ  নয়, ভবিষ্যতে কোনো একদিন দেশে হিন্দু ধর্ম আসবে, সেসময় আমরা লাল কেল্লায়ও গেরুয়া পতাকা উড়াবো। এখন তেরঙ্গা আমাদের জাতীয় পতাকা, এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই এবং সবারই একে সম্মান দেখানো উচিত,” বলেন তিনি।

মঙ্গলবার শিবমোগার সরকারি ফার্স্ট গ্রেড কলেজে হিজাববিরোধী এক বিক্ষোভের সময় কিছু শিক্ষার্থী তেরঙ্গা নামিয়ে গেরুয়া পতাকা উড়িয়ে দিয়েছিল- রাজ্য কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট ডি কে শিবকুমারের এমন দাবির প্রেক্ষিতেই মূলত ঈশ্বরাপ্পা তেরঙ্গা ও গেরুয়া নিয়ে এসব বলেছেন।

শিবকুমারের দাবিকে ‘মিথ্যাচার’ অ্যাখ্যা দিয়ে ঈশ্বরাপ্পা বলেছেন, রাজ্য কংগ্রেসের সভাপতি হিন্দু-মুসলিমদের বিভক্ত করার চেষ্টা করছেন।

“ডি কে শিবকুমার একটা মিথ্যুক, তাকেই প্রমাণ করতে বলুন। হ্যাঁ, সেখানে গেরুয়া পতাকা উড়েছে, কিন্তু জাতীয় পতাকা নামিয়ে নয়। গেরুয়া পতাকা যে কোনো জায়গায় লাগানো যায়, তবে জাতীয় পতাকা নামিয়ে লাগানো যাবে না। এটা হয়নি, কখনো হবেও না। জাতীয় পতাকা সরানো হয়নি, কেবল পতাকার স্ট্যান্ডটি ব্যবহার করা হয়েছে,” বলেছেন কর্ণাটকের গ্রাম উন্নয়ন ও পঞ্চায়েত রাজমন্ত্রী।

শিবমোগা কলেজ কর্তৃপক্ষ এবং পুলিশের কর্মকর্তারাও একই কথা বলছেন।

“পতাকার স্ট্যান্ডটি খালিই ছিল। কয়েকজন সেখানে গেরুয়া পতাকা বেঁধে দিয়েছিল। পরে তারাই সেটি সরিয়ে নেন,” বলেছে তারা।

মন্তব্য করুন

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

spot_imgspot_img

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

জাবির বি ও সি ইউনিটের ফল প্রকাশ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় সমাজবিজ্ঞান অনুষদভুক্ত বি ইউনিটের এবং কলা...

একটি দূর্ঘটনায় স্বপ্ন ভঙ্গ হলো মোসহাব ও রাকিবের

সিফাত আল ফাহিম দু'জনেরই ইচ্ছে ছিলো উচ্চ শিক্ষায় পাড়ি জমাবেন দেশের বাইরে তবে একটি দূর্ঘটনায় স্বপ্নের নির্মম অপমৃত্যু...

ঢাকায় চাকরির সুযোগ দিচ্ছে এসএমসি

সোশ্যাল মার্কেটিং কোম্পানিতে (এসএমসি) ‘কনসালট্যান্ট/স্পেশালিস্ট’ পদে জনবল নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহীরা আগামী ০১ আগস্ট পর্যন্ত আবেদন করতে...

টিকটকের রূপে আসছে ফেসবুক

ফেসবুক তাদের হোম পেজে বড়সড় পরিবর্তনের ঘোষণা দিয়েছে। এতে নতুন করে একটি ভিডিও বিভাগ যুক্ত হতে চলেছে। যা...

অবশেষে পদ্মা সেতুতে প্রাণ গেল ২ যুবকের।

পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত দুই যুবক মারা গেছেন। ঢাকা মেডিক্যাল পুলিশ ক্যাম্পের (ইনচার্জ) ইন্সপেক্টর বাচ্চু মিয়া...

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

অস্তিত্ব সংকটে উইঘুর মুসলিমরা

মোঃ ইমন আল রশিদ উৎস। এশিয়া মহদেশের পূর্ব অঞ্চলে এবং...

যুদ্ধ হতে পারে কয়েকদিনের মধ্যেই, রাশিয়া অজুহাত খুঁজছে: বাইডেন

ইউক্রেইনে আগ্রাসনের অজুহাত তৈরি করতে রাশিয়া সাজানো ভুয়া হামলার...

এক সপ্তাহ পর কর্ণাটকে কলেজ খুলল

রাজ্য কর্তৃপক্ষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নারী শিক্ষার্থীদের হিজাব পরা নিয়ে...

ডাউনিং স্ট্রিটে পার্টি করা নিয়ে জনসন আইন ভেঙেছেন: জন মেজর

অভিযোগ করে মেজর বলেন, সরকার ‘নিয়ম মানার প্রয়োজন নেই’...