শান্তিতে নোবেল পুরস্কার লাভ করলেন ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ আলি

প্রতিবেদক|| সামিয়া নওশীন বাশার:

২০১৮ সালে ডেনিস মুকউইগে এবং নাদিয়া মুরাদের পর ২০১৯ সালে শান্তিতে একক ভাবে নোবেল পুরস্কার পেলেন ইথিওপিয়ার প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদ আলি সম্প্রতি তিনি দীর্ঘ বিশ বছর ধরে প্রতিবেশী দেশ এরিথ্রিয়ার সাথে চলমান সীমানা বিষয়ক দ্বন্দের অবসান ঘটান।

শান্তি রক্ষা, আন্তর্জাতিক সহযোগিতা অর্জন এবং বিশেষত সীমানা বিষয়ক দ্বন্দ্ব সমাধানের জন্য তিনি এই পুরস্কার লাভ করেন। ২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে ক্ষমতায় এসেই তিনি এরিথ্রিয়ার প্রধানমন্ত্রী ইসাইয়াস আফওয়ারকির সাথে উপরোক্ত বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেন এবং “না শান্তি, না যুদ্ধ” এমন অস্থায়ী অবস্থা মিটিয়ে ফেলতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হন। বলা বাহুল্য যে তিনি সমস্যাটি সমাধানে উদ্যোগ গ্রহণ করেন এবং সফল হন।

এছাড়াও কয়েক হাজার কারাবন্দিদের মুক্তি দান, নির্বাসিতদের এরিথ্রিয়ায় প্রেরণ, গুরুত্বপূর্ণ পদে মহিলা সদস্যদের নিয়োগ প্রভৃতি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন আবি।

আফ্রিকার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ জনবহুল দেশ ইথিওপিয়া এবং অর্থনৈতিক দিক থেকে পূর্ব আফ্রিকার বৃহত্তম দেশ এটি। ইথিওপিয়ার উন্নয়ন, সফলতা, শান্তি রক্ষা পূর্ব আফ্রিকান জাতিসমূহের মধ্যে সম্প্রীতি তৈরি করবে। দুই দেশের সীমানাবর্তী অঞ্চল নিয়ে প্রতীয়মান সমস্যা ছিল উন্নয়নের পথে একটি বাধা স্বরূপ। যা আবি আহমেদ মিটিয়ে ফেলে নিজেকে নোবেল পুরস্কারের যোগ্য করে তুলেছেন। নরওয়েজিয়ান নোবেল কমিটির মতে এই বছর আবিই শান্তি আনয়নে সবচেয়ে বড় ভূমিকা পালন করেছেন।