অ্যাশেজে আম্পায়ারদের ভুল সিদ্ধান্তের লড়াই

সিফাতুল ইসলাম ।। ঢাকা : অ্যাশেজ মানেই ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার শান্তির লড়াই। বিশ্বের সব থেকে দামী ও জনপ্রিয় টেস্ট সিরিজ হিসেবে পরিচিত অ্যাশেজ। এছাড়াও এই সিরিজের মাধ্যমেই প্রথম বারের শুরু হলো আন্তর্জাতিক টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের। দুই বছর দীর্ঘ এই প্রতিযোগিতার ফাইনাল হবে ২০২১ সালে। প্রথম ম্যাচে টসে জিতে ব্যাট করতে নামে অস্ট্রেলিয়া। স্মিথের ১৪৪ রানের উপর ভর করে সবগুলো উইকেট হারিয়ে অস্ট্রেলিয়া সংগ্রহ করে মাত্র ২৮৪ রান। এ দিন স্মিথ ছাড়া ব্যার্থ হয়ে ফিরে যান সকল অজি ব্যাটসম্যানরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে বার্নস এর শতক এবং অধিনায়ক রুট ও অলরাউন্ডার স্টোকসের অর্ধশত রানে ভর করে ৩৭৪ রানে অলআউট হয় স্বাগতিকরা। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে লিডের বোঝা মাথায় নিয়ে মাঠে নামে অজিরা। প্রথম ইনিংসে ব্যার্থ অস্ট্রেলিয়া দ্বিতীয় ইনিংসে ঘুড়ে দাড়াঁয় শক্ত ভাবে। একই টেস্টে টানা দ্বিতীয় শতকের দেখা পান বল টেম্পারিংয়ের দায়ে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে দলে ফেরা স্মিথ। তিনি খেলেন ১৪২ রানের বিশাল ইনিংস। অপরদিকে শতকের দেখা পান আরেক অজি ব্যাটসম্যান ওয়েড। এছাড়াও অর্ধশত করেন হেড। ফলে দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ উইকেটে ৪৮৭ রানের বিশাল সংগ্রহ পায় অস্ট্রেলিয়া। জবাবে ৩৯৭ রানের বিশাল লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১৪৬ রানে শেষ হয় স্বাগতিক ইংল্যান্ডের ইনিংস। এর মধ্যদিয়ে বিশ্বকাপ জয়ী দলটার বিপক্ষে ২৫১ রানের বিশাল জয় পায় অস্ট্রেলিয়া। ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন স্মিথ। কিন্তু বিশ্বকাপে বার বার বিতর্কিত আম্পায়ারিং এর অভিযোগ উঠার পর ও থামছে না আম্পায়ারদের ভুল সিদ্ধান্ত দেওয়ার প্রতিযোগিতা। টানা ৫ দিন একের পর এক ভুল সিদ্ধান্ত দিয়ে গেছেন দুই ফিল্ড আম্পায়ার আলিমদার ও উইলসন। বার বার রিভিও নিতে হয়েছে দুই দলকেই।